ফ্যাশন

শীতে পায়ের পরিচর্যা

শীত আসতে না আসতেই প্রকৃতি যেমন রুক্ষ হতে থাকে তেমনি তা ত্বকের উপরও প্রভাব ফেলে। ত্বকের রুক্ষতার জন্য আমরা অনেকেই অনেক কিছু করে থাকি কিন্তু পায়ের যত্ন নেই কয়জন?

শীতকালে পায়ের গোড়ালি থেকে চামড়া উঠতে থাকে, পা ফাটে। সুন্দর পা আপনার ব্যক্তিত্বের প্রকাশক তাই পায়ের যত্নে আজই সচেতন হন।

পায়ের যত্নে যা যা করবেন –

১। পা ফাটা থেকে মুক্তি পেতে গোসলের সময় বিশেষ যত্ন নিন। গোসলের সময় ধুন্দলের খোসা ও সাবান দিয়ে পা ভালো করে পরিষ্কার করুন।

২। পায়ে অয়েল ম্যাসাজ করতে পারেন এটি পায়ের যত্নে ভাল। নারিকেল তেল পায়ের পাতায় ও গোড়ালিতে ম্যাসাজ করুন এতে করে ভাল ফল পাবেন। তবে আপনি চাইলে তিল তেল, আমন্ড তেল বা সরিষার তেলও ব্যবহার করতে পারেন।

৩। বাইরে থেকে ঘরে ফিরে প্রথমেই গরম জল ও সাবান দিয়ে ভালো করে পা পরিষ্কার করে নিন। এরপর শুকনো তোয়াল দিয়ে পা মুছে ময়েশ্চারাইজার বা ফুট ক্রিম লাগিয়ে নিন। এর পাশাপাশি ফুট স্ক্র্যাবার বা ফুট মাস্কও ব্যবহার করতে পারেন।

 

 

 

৪। হলুদ, দই, বেসন, দুধের সর দিয়ে প্যাক তৈরি করে পায়ে লাগান এতে পায়ের ত্বক সুন্দর হবে এবং পা ফাটার সমস্যা অনেকটাই কমে যাবে।

৫। একটি পাত্রে ঈষদষ্ণু পানিতে আধ চামচ নারিকেল তেল, সামান্য লবণ মিশিয়ে তাতে ১০ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখুন এবং একটা পাউমিস স্টোন দিয়ে গোড়ালি ও পায়ের পাতা ভালো করে ঘষে নিন তাহলে পা ফাটা দূর হবে।

৬। এছাড়াও পায়ের ফাটা অংশে ময়লা জমলে দু-তিন চা চামচ চালের গুঁড়ির সঙ্গে এক টেবিল চামচ মধু ও ভিনেগার মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করে লাগিয়ে হালকা হাতে কিছুক্ষণ ঘষে ধুয়ে ফেলুন। এতে গোড়ালির মৃত কোষ এবং ধুলোময়লা সহজে চলে যাবে। পা ফাটার সমস্যা দূরে থাকবে।

৭। বেসন, দুধের সর, মধু, হলুদ বাটা মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্ট গোড়ালিতে লাগিয়ে ভিজে হাত দিয়ে ঘষে ধুয়ে ফেলুন। এতে করে আপনার পায়ের গোড়ালি আরো নরম ও সুন্দর হবে।

৮। পাকা কলা ভালো করে চটকে নিয়ে এতে সামান্য নারিকেল তেল ও দুধের সর মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করে গোড়ালিতে লাগান। ১০ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৯। গোলাপ জল আর গ্লিসারিনের সঙ্গে একটু লেবুর রস মিশিয়ে বানিয়ে বোতলে ভরে ফ্রিজেও রাখতে পারেন। তাহলে বারবার ব্যবহার করতে পারবেন।

১০। এছাড়াও রাতে ঘুমানোর আগে ঈষদষ্ণু পানিতে সামান্য লবণ, শ্যাম্পু মিশিয়ে পা ডুবিয়ে রিল্যাক্স করুন। এতে গোড়ালিতে জমে থাকা ধুলোময়লা সহজে পরিষ্কার হয়ে যাবে। তারপর ভালো ময়েশ্চারাইজার ক্রিম বা ভিটামিন ই-সমৃদ্ধ ফুট লোশন দিয়ে পা ও গোড়ালি ম্যাসাজ করুন।

১১। আবার আপনি চাইলে ক্রিমের বদলে পেট্রোলিয়াম জেলির সাথে লেবুর রস মিশিয়ে পা ফাটার ওপর লাগান। নিয়মিত এইভাবে গোড়ালির যত্ন নিতে পারলে আপনার পা ফাটার সমস্যার অনেকটাই সমাধান হয়ে যাবে।

 

Please follow and like us:

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *