পিরিয়ড

ট্যাম্পন, প্যাড বা  মিনসস্ট্রিয়াল কাপ? আপনার জন্য কোনটি সঠিক?

নারী তার জীবদ্দশায় প্রায় 10 হাজার স্যানিটারি পণ্য ব্যবহার করে, এটি স্পষ্ট যে নারীরা তাদের মাসিক ব্যবস্থাপনা পদ্ধতিতে গুরুতর নজর রাখতে চান।

 

স্যানিটারি প্যাডঃ স্যানিটারি প্যাড, যা স্যানিটারি ন্যাপকিনস বা মাসিক প্যাড নামেও পরিচিত এবং এটি নারীর মেয়েলি ব্যাপারগুলিতে একটি বিশেষ নাম। এটি সাধারণত দৈর্ঘ্যটা কিংবা শোষণ ক্ষমতার উপর তৈরি হয়ে থাকে।কিছু মহিলা অতিরিক্ত সুরক্ষা জন্য একটি প্যাড এর  সাথে ট্যাম্পন ও ব্যাবহার করে থাকেন । স্যানিটারি প্যাডের অসুবিধা হল অনেকে এটি ব্যাবহার করে অসস্থিকর বোধ করেন যা তাদের দৈনন্দিন কার্যকলাপে বাধা দেয়।

 

ট্যাম্পনঃ ট্যাম্পন ১৯৩০ সাল থেকে ব্যাবহার হয়ে আসছে। ৪১ বছরের নিচের নারীদের জন্য এটি একটি পছন্দের পণ্য । এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে নারীরা তাদের শারীরিক সাছন্দতার জন্য ট্যাম্পন ব্যাবহার করে থাকেন যা স্যানিটারি প্যাড এর মত বিভিন্ন সাইজ এবং শোষণ ক্ষমতার উপর হয়ে থাকে । সাধারণত ৪ থেকে ৮ ঘণ্টা পর পর ট্যাম্পন পরিবর্তন করতে হয়। যাইহোক, কিছু প্রমাণ আছে যে ট্যাম্পন ব্যবহার করে মহিলাদের মূত্রনালী সংক্রামক রোগের একটি ঝুঁকি থাকতে পারে।

 

মিনসস্ট্রিয়াল কাপঃ  দুই ধরনের মিনসস্ট্রিয়াল কাপ আছে: প্রথমটি কিছুটা নরম, নমনীয়, ডিসপোজেবল কাপ যা একটি ডায়াফ্রামের মত। দ্বিতীয়টি কিছুটা ঘণ্টা আকৃতির কাপ যা রবার (ল্যাটেক্স) বা সিলিকন দিয়ে তৈরি করা এবং এটি পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পরিষ্কার করে পরে পুনরায় ব্যবহার করা যায়। দুই ধরনের কাপ ই মাসিকের রক্ত সংগ্রহ করতে পারে যা পরবর্তীতে পুনরায় ব্যাবহার কওরা যায়। এটি শোষণ না করে মাসিকের তরল সংগ্রহ করে যা আপনি ফেলে দিয়ে আবার ব্যাবহার করতে পারবেন।

 

আপনি আপনার মাসিকের সময় যেই পণ্য ই ব্যাবহার করুন না কেন আপনার পণ্যটি ব্যাবহার এর আগে কিংবা পরে অবশ্যই হাত ভাল কওরে ধুয়ে নিবেন রোগ প্রতিরোধ এর জন্য।

 

এটা গুরুত্বপূর্ণ যে নারীরা তাদের মাসিক সম্পর্কে পরিপূর্ণ এবং সঠিক  ধারনা রাখে  যাতে তারা তাদের মাসিক চক্র নিয়ে কোন অন্ধবিশ্বাস বা ভুল তথ্যের সম্মুখীন না হয়

Please follow and like us:

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *