স্বাস্থ্য

ভাল ঘুমের জন্য ডায়েট প্লান

আপনি যতই ব্যস্ততা নিয়ে দিন কাটান না কেন আপনার শরীর ঠিক ও কর্মঠ থাকার জন্য দরকার পর্যাপ্ত ঘুম বা বিশ্রামের। আর এই ঘুম নিয়েই যদি থাকে সমস্যা তাহলেই আপনি মোটামুটি নিশ্চিত থাকুন যে আপনাকে আরো বেশ কিছু সমস্যায় ভুগতে হতে পারে। একজন সুস্থ মানুষকে প্রতিদিন অন্তত ৮ ঘন্টা ঘুমাতে হয়। কিন্তু যারা অনিদ্রা রোগে ভুগেন তারা বেশিরভাগ সময়ই ঘুমের ঔষধ খান। এই ঘুমের ঔষধের থাকে নানা পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া যা আপনাকে নানা রকম শারীরিক সমস্যায় ফেলতে পারে।

 

 

 

তবে এমন কিছু খাবার আছে যা আপনার ভাল ঘুম হতে সাহায্য করবে। সেই সব খাবার দিয়েই আপনি তৈরি করতে পারেন আপনার জন্য চমৎকার একটি ডায়েট প্লান। যেমন –

১। কলা : কলাতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম যা আপনার মস্তিষ্ককে রিলাক্স করতে সহায়তা করে এবং মাংস পেশিগুলোকে  শিথিল করে। প্রতিদিন ঘুমাতে যাওয়ার প্রায় এক ঘন্টা আগে কলা খান। যদি শুধু কলা খেতে ভাল না লাগে তবে এক কাপ দুধের সাথে একটি পাকা কলা মিশিয়ে স্মুদি তৈরি করে নিতে পারেন।

২। দুধ : রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে দুধ পান করার অভ্যাস তৈরি করুন। দুধে থাকা অ্যামিউনো অ্যাসিড মস্তিষ্কে সেরোটিন নামক উপাদান তৈরি করে যা ঘুম আনতে কার্যকরী ভূমিকা রাখে। এছাড়াও দুধে রয়েছে ক্যালসিয়াম যা আপনার নার্ভকে শান্ত রাখবে। আবার টকদই এবং চিজও ঘুম আসার জন্য উপকারী।

৩। মাশরুম : মাশরুমে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ডি, পটাসিয়াম ও সেলিনিউম। আধা কাপ রান্না করা মাশরুম প্রতিদিনের ১/৩ সেলিনিউমের অংশ পূরণ করে। এছাড়াও এতে রয়েছে ভিটামিন বি২ এবং ভিটামিন বি৩। মাশরুম আপনাকে ঘুমাতে সাহায্য করবে।

৪। কাঠবাদাম : সাধারণত দেহে ম্যাগনেসিয়ামের মাত্রা কমে গেলে অনিদ্রা সমস্যা দেখা দেয়। কাঠবাদামে প্রচুর পরিমাণ ম্যাগনেসিয়াম রয়েছে যা আপনাকে ভালো ঘুম দেবে তার সাথে মাথাব্যথা সারিয়ে তুলতেও সাহায্য করবে।

৫। মধু : বিশুদ্ধ মধুতে প্রচুর গ্লুকোজ রয়েছে যা আপনার মস্তিষ্কের ওরেক্সিন নামক উপাদানে প্রভাব ফেলে এবং আপনাকে রিল্যাক্স করতে সহায়তা করে। এক টেবিল চা চামচ মধু ঘুমানোর জন্য যথেষ্ট, এর বেশি খাবেন না কেননা অতিরিক্ত মধু ক্ষতি করে।

৬। চেরি ফলের রস : এক গ্লাস চেরি ফলের রস আপনাকে দ্রুত ঘুম পাড়াতে সাহায্য করবে। রাতের খাদ্য তালিকায় এক গ্লাস চেরি ফলের রস পান করার চেষ্টা করুন।

৭। মিষ্টি আলু : মিষ্টি আলু পটাশিয়ামের একটি অন্যতম উৎস। পটাশিয়াম আপনার মাংসপেশি, নার্ভ শিথিল করতে কাজ করবে।

আপনার ডায়েট চার্টে এই খাবারগুলো তালিকাভুক্ত করলে আপনার ঘুমের সমস্যা যেমন কমবে তেমনি এগুলো আপনার শরীরের পুষ্টি চাহিদাও পূরণ করবে।

 

 

 

 

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *