ক্যারিয়ার

কিভাবে আপনার পছন্দমত কর্মজীবন বেছে নেবেন, জেনে নিন ৪টি টিপসঃ

কিভাবে আপনার পছন্দমত কর্মজীবন বেছে নেবেন, জেনে নিন ৪টি টিপসঃ

চাকরি বা কর্ম জীবন খোঁজার সময় একটি পরামর্শ অনেকবার শুনতে পাবেন আর তা হল ‘যে কাজে তুমি আগ্রহী সেই কাজটি বেছে নাও’। যে কাজটি আপনার প্রেরণা যোগাবে, আপনাকে খুশি করবে শুধু সেই কাজটি জীবনে আপনাকে সন্তুষ্ট রাখবে। কিন্তু কর্ম জীবন এর আগ্রহ বোঝার আর সেটার উপর নির্ভর করে চাকরি বেছে  সহজ না। আপনার কাজ কর্মের ধারা পর্যবেক্ষণ করতে এবং সিদ্ধান্ত দেওয়ার ক্ষমতা সঠিক করতে হবে। আপনার কাজ আপনাকে খুশি না করতে পারলে, আপনার জীবনে সফল হয়ে উঠাও অনেক কষ্টকর হবে। কিন্তু আপনার খেয়াল রাখতে হবে যে আপনার পছন্দ মত কাজটি আপনার জন্য উপযুক্ত একটা জীবন যাপন এর সুযোগ করে দেবে কি না!

) নিজেকে পর্যবেক্ষণ করেন

প্রথম কাজ নিজের উপর মনোযোগ দেওয়া। এমন কিছু জিনিস আছে যেগুলো আপনাকে অনেক খুশি করে ফেলে, আপনার মন খারাপ থাকলে সেগুলো করলে আপনি সাচ্ছন্দ বোধ করেন। এসব জিনিস গুলো ভালো মত বুঝার জন্য আপনার প্রতিদিনের চিন্তা ভাবনা এবং আপনার জীবনের ঘটে যাওয়া ঘটনা গুলো একটা খাতাতে লিখে রাখবেন আর সেই গুলি পরবেন। এভাবে আপনি নিজের সম্পর্কে একটা ভালো ধারণা লাভ করতে পারবেন।

) কোন কাজ গুলো করার জন্য আপনি অপেক্ষা করেন?

এমন কি কাজ আছে যেটার জন্য আপনার ব্যস্ততার মাঝে আপনি সময় বের করে নেন? আপনি কিসের উপর বেশি সময় ও টাকা খরচ করেন? আপনি কি কি করার জন্য পুরো সপ্তাহ অপেক্ষা করেন, আর সেটা করা মাত্রই আপনি অনেক স্বস্তি পান, তা আপনার বুঝতে হবে। হয়ত আপনার জীবনে এমন কিছু অভিজ্ঞতা আছে যেটা আপনার জন্য আশ্চর্য রকম খুশি এনে দিয়েছে। সেগুলো কি কি আর আপনার অনুভূতি গুলো কেমন ছিল, যদি ভালোভাবে বুঝতে পারেন তাহলে নিজের পছন্দ ও অপছন্দ, অনেক খানি বিবেচনা করতে পারবেন। 

) আপনার দক্ষতা কি কি, আপনি কি সেটা অনুশীলন করছেন? 

আপনার স্বাভাবিক দক্ষতা বুঝার চেষ্টা করুন এবং সেটাকে অনুশীলন করুন, তাহলে আপনার দক্ষতা পরিপূর্ণতা পাবে।যে কোন সফল ব্যক্তি খুব সহজেই তার কাজ এ শ্রেষ্ঠ হতে পারেন না। কাজটি পিছনে যথেষ্ট সময় ও শ্রম দেন। অনেকবার চেষ্টা করে জান, বার বার পরে গিয়ে ও উঠে দারান, তাহলে পরিপূর্ণ ভাবে কাজটি দক্ষতা অর্জন করতে পারবেন। বিরাট কোহলি প্রথম থেকেই সেরা দের মধ্যে একজন শ্রেষ্ঠ প্লেয়ার ছিলেন না। মার্ক জুকারবার্গ এর তৈরি ফেসবুক প্রথম থেকেই পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া হয়ে ওঠেনি। 

) কর্মজীবন পথ গুলো অন্বেষণ করুনঃ

আপনার আগ্রহের ক্ষেত্র গুলো বুঝার পর বিভিন্ন কাজ সন্ধানের সময়, কাজ গুলির পথ বিশ্লেষণ করবেন। নানান কাজের বর্ণনা পড়ে, ভাল ভাবে বিবেচনা করবেন। ভবিষ্যতে ও বর্তমানে কোন কাজ গুলো সবচেয়ে বেশি মার্কেটে জনপ্রিয় সেটা জানা দরকার  তাহলে সঠিক জায়গা বেছে নিতে পারবেন খুব সহজেই।

আপনি কোন কাজটি করে সাচ্ছন্দ বোধ করবেন, সেটি সবার জন্য বুঝা সম্ভব না। একেক মানুষ তার ভিতরের প্রতিভার প্রকাশ একেক ভাবে বুঝতে পারেন। নিরাশ না হয়ে নিজেকে সময়ে দিন ও নিজের জন্য সঠিক সিদ্ধান্ত নিন।

LEAVE A RESPONSE

Your email address will not be published. Required fields are marked *